১১৮ টি মৌলের নাম, পারমাণবিক সংখ্যা এবং ইলেক্ট্রন বিন্যাস কিভাবে মনে রাখব - আস্ক পড়ুয়া
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
160 বার প্রদর্শিত
"রসায়ন" বিভাগে করেছেন (263 পয়েন্ট)

3 উত্তর

1 টি পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (1.4k পয়েন্ট)
সম্পাদিত করেছেন

১১৮টি মৌলের নাম মনে রাখার কোনো সহজ উপায় নেই। এগুলো মনে রাখার একমাত্র উপায় হলো সব মুখস্ত করে ফেলা। ভাববেন না এটি অসম্ভব। এটি অবশ্যই সম্ভব। আমি নিজে সব মুখস্ত করেছি। আর সিরিয়াল মতো সব মৌলের নাম মুখস্ত রাখতে পারলে পারমাণবিক সংখ্যা এমনিতেই বলতে পারবেন। আর ইলেকট্রন বিন্যাস মুখস্ত করার কোনো প্রয়োজন নেই। ইলেকট্রন বিন্যাসের নিয়ম জানলে সহজেই কয়েক সেকেন্ডের মধ্যে যেকোনো মৌলের ইলেকট্রন বিন্যাস বের করা যায়।  তবুও যতটা সম্ভব shortcut দেওয়ার চেষ্টা করছি। এর চেয়ে সহজ কোনো shortcut আমার জানা নেই।

পারমাণবিক সংখ্যা

পুরো পর্যায় সারণি পারমাণবিক সংখ্যা অনুযায়ী মুখস্ত করার পর মাত্র কয়েকটি মৌলের পারমাণবিক সংখ্যা মনে রাখলেই আপনি যেকোনো মৌলের পারমাণবিক সংখ্যা চট করে বলে ফেলতে পারবেন। যেমন-

১- হাইডোজেন

১১- সোডিয়াম

২১- স্কেন্ডিয়াম

৩১- গ্যালিয়াম

৪১- নায়োবিয়াম

৫১- এন্টিমনি

৬১- প্রমেথিয়াম

৭১- লিউটেসাম

৮১- থ্যালিয়াম

৯১- প্রটেক্টিনিয়াম

১০১- মেন্ডেলেভিয়াম

১১১- রন্টগেনিয়াম

এই কয়টা মৌলের পারমাণবিক সংখ্যা মুখস্ত রাখলে কেউ যদি আপনাকে Tantalum এর পারমাণবিক সংখ্যা জিজ্ঞাসা করে তবে আপনার পর্যায় সারণি মুখস্ত থাকায় আপনি বুঝতে পারবেন যে Tantalum লিউটেসাম এর পরে আছে। আর যেহেতু লিউটেসাম এর পারমাণবিক সংখ্যা ৭১, আপনি এক সেকেন্ডে গুণে বলে দিতে পারেবন যে Tantalum এর পারমাণবিক সংখ্যা ৭৩। আবার, ৭৮ নাম্বার মৌল জিজ্ঞাসা করলে আপনি জানেন যে লিউটেসাম ৭১। আপনি দুই সেকেন্ডে গুণে বলে দিতে পারেবন যে ৭৮ হলো প্লাটিনাম। 

ভরসংখ্যা

ভরসংখ্যাও মুখস্ত করতে হয়। তবে সাধারণত ভরসংখ্যা পারমাণবিক সংখ্যার দ্বিগুণ হয়। তাই যেগুলো দ্বিগুণ না শুধু সেগুলো মুখস্ত করতে পারেন। এছাড়া কিছু গুরুত্বপূর্ণ মৌল আছে যেগুলো অনেক বেশি ব্যবহার করতে হয়। এগুলো জানলেই মোটামুটি ক্লাস ৯-১০ পার করা যাবে। যেমন-

H-1, C-12, N-14, O-16, F-32, Na-23, Mg-24, Al-27, S-32, Cl-35.5, K-39.1, Ca-40, Mn-55, Fe-56, Cu-63.5, Zn-65

গ্রুপ

গ্রুপগুলো অর্থাৎ কোন গ্রুপে কী কী মৌল আছে সেটা সিরিয়াল মতো মুখস্ত করতে হবে। আর সেটা করার কিছু সহজ উপায় আছে। যেমন-

image

পর্যায়

পর্যায় সারণি পারমাণবিক সংখ্যা অনুযায়ী মুখস্ত পারলে আলাদা করে পর্যায় মুখস্ত করার কোনো প্রয়োজনই নেই।

ইলেক্ট্রন বিন্যাস

এটা আপনাকে কেউ মুখে বলতে বলবে না। আমাদের সাধারণত e- সর্বশেষ কোন শক্তিস্তরে প্রবেশ করলো অথবা শেষ অর্থাৎ সর্ববহিঃস্থ শক্তিস্তরের বিন্যাসটি প্রয়োজন হয়। যদি হোলমিয়ামের ইলেকট্রন বিন্যাস করতে হয়, তাহলে সাধারণত আমরা যা করি তা হলোঃ

Ho(67)= 1s2 2s2 2p6 3s2 3p6 4s2 3d10 4p6 5s2 4d10 5p6 6s2 4f14 5d7 অথবা 1s2 2s2 2p6 3s2 3p6 3d10 4s2 4p6 4d10 4f14 5s2 5p6 5d7 6s2  

 পরীক্ষার সময় পুরোটুকু খাতায় রাফ করতে অনেক সময় লাগবে। তাই আমরা যদি জানি যে 4f14 পর্যন্ত ৬০টি e- আছে তাহলেঃ

1s

2s 2p

3s 3p 3d

4s 4p 4d 4f

5s 5p 5d 5f

6s 6p 6d

7s 7p

এখান থেকে আমরা সহজেই বুঝতে পারব যে Ho(67) এর ক্ষেত্রে আরো ৭টি e- 5d তে প্রবেশ করবে। সেক্ষেত্রে, e- সর্বশেষ 5d  শক্তিস্তরে প্রবেশ করবে এবং সর্ববহিঃস্থ শক্তিস্তর ৬।

একইভাবে 2p6 পর্যন্ত 10টি e-, 4s2 পর্যন্ত 30টি e-, 4f14 পর্যন্ত 60টি e-, 6p6 পর্যন্ত 100টি e-।


করেছেন (263 পয়েন্ট)
0 0
Shortcut নিয়মটা আরেকটু বিস্তারিত বললে ভালো হয়
করেছেন (263 পয়েন্ট)
0 0
আর পর্যায় সারণির মৌলগুলো ঠিক কিভাবে মুখস্ত করব, মানে কেউ যদি হঠাৎ করে বলে Tantalum বা,  Arsenic এর গ্রুপ, পর্যায়, পারমাণবিক সংখ্যা, ভরসংখ্যা কত ? তাহলে কিভাবে চট করে উত্তর দেব plz বলেন। বা আপনি কোন tricks ব্যবহার করেন তা বললে ভালো হয়।
করেছেন (1.4k পয়েন্ট)
0 0
সেক্ষেত্রে উত্তরটি অনেক বড় হবে। তাই আমি প্রথমে কিছু বিষয় জেনে নিতে চাচ্ছি।
১. আপনি কি ইলেকট্রন বিন্যাস কীভাবে করতে হয় তা জানেন?
২. ইলেকট্রন বিন্যাস থেকে কীভাবে গ্রুপ ও পর্যায় নির্ণয় করতে হয় জানেন?
করেছেন (263 পয়েন্ট)
0 0
দুটোর উত্তরই হ্যাঁ, পারি। মৌলের নাম সিরিয়াল অনুযায়ী মুখস্ত করলে পারমাণবিক সংখ্যা জানা যাবে। কিন্তু হঠাৎ কেউ যদি বলে,৭৮ নম্বর মৌলের নামসহ ডিটেল্স বলতে তাহলে কিভাবে বলব, এটাই জানতে চাচ্ছিলাম।
করেছেন (1.4k পয়েন্ট)
0 0
আমার যা জানা আছে সব লিখে দিয়েছে। আর কিছু জানি নাহ।
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (1.1k পয়েন্ট)

image image image image

কাজে লাগতে পারে...।। 

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
করেছেন (217 পয়েন্ট)

সবগুলো মনে রাখার কোনো নিয়ম জানা নেই, তবে প্রথম ৩০ টা মনে রাখার একটা শর্টকাট জানি। তবে বিষয়টা প্রথম প্রথম ছেলেমানুষী লাগতে পারে, কিন্তু একবার ভালোভাবে মনে রাখলে, পরে ভুলবার চান্স অনেকটাই কমে যায়। 


১ থেকে ২০ পর্যন্ত মৌলের পারমাণবিক সংখ্যা আর ভর মনে রাখার পদ্ধতি 


হাই হেলেন লিটন বেলিকে বউ করে নিলো। অরূণ ফুলিকে নিয়ে নামাজে এলে সিজদায় পড়ে সবাই কালিমা আওড়ায়।


হাই  (H) 

হেলেন (He)

লিটন (Li)

বেলিকে (Be)

বউ (B)

করে (Cr)

নিলো (N)

অরূন (o)

ফুলিকে (F)

নিয়ে (Ne)

না (Na)

মাজে (Mg)

এলে (Al)

সিজদায় (Si)

পড়ে (P)

সবাই (S)

কালিমা (Cl)

আওড়ায় (Ar)


এটি মনে রেখেছি আঙ্গুল দিয়ে। আঙুলের গিট গুনতে গুনতে এটা গড়গড় করে পড়লেই হয়। এখানে যতগুলোর পারমাণবিক সংখ্যা জোড়, তার সাথে ২ গুণ করলেই ভর পাওয়া যায়।

আর বিজোড় গুলোর সাথে ২ গুণ করে এক যোগ করতে হয়। 

তবে ব্যতিক্রমও আছে, যেমন- H, Be, N ও Cl এর পারমাণবিক সংখ্যা 1, 4, 7 and 17 হলেও এদের ভর 1,9,14 and 35.5। 


কেকা  (ফেরদৌসি ) 


কে (K)

কা (Ca)


এখানে ফেরদৌসি লাগানোর দরকার ছিলো না। কিন্তু কেন জানি উনার চেহারাটা মাথার মধ্যে ভেসে উঠলে মনে রাখতে সুবিধা হয়! ভরের জন্যেও এখানে একই নিয়ম কাজ করে। 


২০ থেকে ৩০ পর্যন্ত মৌলের পারমাণবিক সংখ্যা মনে রাখার পদ্ধতি 


স্কুটি ভ্যান করে মিনা আইস কফি নিয়ে কুপারসে যায়


স্কু (Sc)

টি (Ti)

ভ্যান (V)

করে (Cr)

মিনা (Mn)

আইস (Fe)

কফি (Co)

নিয়ে (Ni)

কুপারসে (Cu)

যায় (Zn)


খুব সম্ভবত তানভীর ভাইয়েরও এরকম একটা সূত্র আছে 

স্কুল টি ভেঙে চেয়ার ম্যান ফের কমিশন নিয়ে কাজে যাচ্ছেন )


দুঃখের বিষয় এটাতে ভর বের করার কোনো নিয়ম নেই, আর থাকলেও সেটা জানি না। 


আর গ্রুপের জন্য আমি অন্যদের মতো একই সূত্রগুলোই ব্যবহার করি, কয়েকটা শব্দ খালি আলাদা, তবে তাতে তেমন কোনো পার্থক্য নাই। 


এখন এই সূত্রগুলির কথা বলি। প্রথম সূত্রটা আমার মেঝো আপুর মাধ্যমে জানা, ওদের এক ক্লাসটিচার এই নিয়ম আবিষ্কার করেছিলো। আমি ক্লাস সেভেনে থাকতেই এটা শিখেছিলাম, যার জন্য এ কয়বছরে একদম মাথায় গেথে গেছে, যদিও শুরুতে শুরুতে অনেক ভুল হতো। 

দ্বিতীয় সূত্রটা আমার নিজের বানানো। কিন্তু এটা বানিয়েছি কলেজে এসে। তাই দুটো সূত্র একসাথে মনে রাখার চেষ্টা করলে কী হবে জানি না। 



আমার এক বড় ভাই বলেছিলেন, এই ভুংভাং সুত্র মনে রাখার সাথে সাথে ডাইরেক্ট মুখস্ত রাখতে, কারণ তাতে mcq এ কম টাইম লাগে। যদিও আমি আর আমার এক বন্ধু এখনো এটাই ব্যবহার করি, কিন্তু আমার সেই বড় ভাই ঠিক কথাই বলেছিলেন। পরীক্ষার হলে প্যানিকড হয়ে গেলে এসব মনে নাও আসতে পারে। 


আরেকটা বিষয় ছিল ম্যাজিক নাম্বারের, (8),8,18,18,32,32 


গ্রুপ ১৩ থেকে ১৮ এর কোনো ১ম মৌলগুলো হলো BCNOF ,এদের সাথে এই নাম্বারগুলো যোগ করলে একই গ্রুপের অন্য মৌলগুলোর সংখ্যা জানা যায়। প্রথম 8টা কেবল গ্রুপ ১৮ এর জন্য, কেননা অন্যান্য গ্রুপগুলোতে ১ নাম্বার গ্রুপ খালি।






সম্পর্কিত প্রশ্নগুচ্ছ

0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
1 উত্তর 50 বার প্রদর্শিত
18 মার্চ "রসায়ন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Lamyea (400 পয়েন্ট)
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
1 উত্তর 33 বার প্রদর্শিত
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
1 উত্তর 42 বার প্রদর্শিত
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
2 টি উত্তর 55 বার প্রদর্শিত
19 মার্চ "রসায়ন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Lamyea (400 পয়েন্ট)
0 পছন্দ 0 জনের অপছন্দ
1 উত্তর 49 বার প্রদর্শিত
27 জুন 2020 "রসায়ন" বিভাগে জিজ্ঞাসা করেছেন Lamyea (400 পয়েন্ট)
"আস্ক পড়ুয়ায় স্বাগতম" আস্কপড়ুয়া একটি জ্ঞানমূলক ওয়েবসাইট।এর মূল উদ্দেশ্য হচ্ছে জ্ঞানের আলোকে ছড়িয়ে দেওয়া।এই কমিউনিটি তে যারা যুক্ত তারা জ্ঞানার্জনে উন্মুখ।যেকোনো বিষয় সম্পর্কে সঠিক তথ্য প্রদানে পড়ুয়া বোর্ড সহযোগিতা প্রদানে তৎপর।

1k টি প্রশ্ন

1.3k টি উত্তর

1.2k টি মন্তব্য

160 জন সদস্য

...